রবিবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৭ ইং, ,

 

screenshot_1

আত্নবিশ্বাস বৃদ্ধি করুন ৭টি কৌশলে

যেকোন কাজে সফল হতে হলে আত্নবিশ্বাসী হওয়া প্রয়োজন। আত্নবিশ্বাস এমন একটি অদৃশ্য শক্তি যা আপনাকে সাফল্যের চূড়ায় নিয়ে যাবে। একজন আত্নবিশ্বাসী মানুষ হাসিমুখে ঝুঁকি গ্রহণ করার সাহস রাখেন। আর জীবনে লক্ষ্য পৌঁছানোর জন্য ঝুঁকি গ্রহণের বিকল্প নেই। তবে অনেকেই আত্নবিশ্বাস ধরে রাখতে পারেন না। কিছু কৌশল আছে যা আপনার আত্নবিশ্বাস বৃদ্ধি করতে সাহায্য করবে।

১। নেতিবাচকতা থেকে দূরে থাকুন

সকল নেতিবাচক বিষয় এবং মানুষ থেকে দূরে থাকুন। সব পরিস্থিতিতে ইতিবাচক থাকার চেষ্টা করুন। অনেক সময় তা থাকা সম্ভব হবে না। ধৈর্য ধরুন, সময় নিন, মাথা ঠান্ডা রাখুন, বিষয়টি ভাবুন। দেখবেন নেতিবাচক একটি বিষয় থেকে ইতিবাচক কিছু খুঁজে পাবেন।

২। লক্ষ্য স্থির রাখুন

নিজের সাথে অন্য কারোর তুলনা করা থেকে বিরত থাকুন। এটি আপনার জীবন, অতএব আপনার জীবনের সমস্যা আপনাকেই সমাধান করতে হবে। অন্য কেউ তা করতে পারবে না। তাই নিজের লক্ষ্য স্থির রেখে সামনের দিকে এগিয়ে চলুন। দেখবেন সাফাল্য আপনার হাতের মুঠোয় চলে আসছে।

৩। ভয়কে জয় করুন

ভয় পাওয়াটা স্বাভাবিক। তাই বলে ভয়ে পেয়ে লক্ষ্য থেকে সরে আসবেন না। নিজের ভয়কে খুঁজে বের করুন, সেটির মুখোমুখি হোন। আপনি যতক্ষণ না ভয়ের মুখোমুখি হবেন ততক্ষণ ভয়কে জয় করতে পারবেন না।

৪। ভুল থেকে শিক্ষা নেওয়া

মানুষ মাত্রই ভুল করে। আপনিও তাঁর ব্যতিক্রম নয়। ভুল থেকে শিক্ষা গ্রহণ করুন। একবার করা ভুল দ্বিতীয়বার করা থেকে বিরত থাকুন। আর এই ছোট বিষয়টি আপনার আত্নবিশ্বাস বৃদ্ধিতে সাহায্য করবে।

৫। পরিষ্কার পোশাক পরিধান

কথিত আছে “আগে দর্শনধারী পরে গুণবিচারী”। আসলেই পোশাক আপনার আত্নবিশ্বাসকে অনেক প্রভাবিত করে। চেষ্টা করুন পরিষ্কার এবং মার্জিত পোশাক পরিধান করার, এটি আপনার আত্নবিশ্বাস বৃদ্ধি করার পাশাপাশি অন্যের চোখে আপনার ভাল একটি ভাবমূর্তি তৈরি করবে।

৬। নিজেকে জানুন

নিজের দূর্বলতাকে জানুন। ভয়কে জয় করার পূর্ব শর্ত হল ভয়ের কারণ খুঁজে বের করা। নিজের দূর্বলতাগুলোর একটি লিস্টে লিখে রাখুন। এবার একটি একটি করে দূর্বলতা থেকে বের হওয়ার উপায় খুঁজে বের করুন। দেখবেন এক সময় আপনার দূর্বলতাই  আপনার শক্তিতে পরিণত হয়েছে। ঠিক তেমনি নিজের প্রতিভাকে খুঁজে বের করুন। আপনি একবার যদি নিজের প্রতিভাকে খুঁজে বের করতে পারেন, দেখবেন আপনার আত্নবিশ্বাস অনেকখানি বেড়ে গেছে।

৭। ছোট ছোট লক্ষ্য নির্ধারণ এবং তা অর্জন করুন

প্রথমেই বড় লক্ষ্য নির্ধারণ না করে ছোট ছোট লক্ষ্য নির্ধারণ করুন। ছোট লক্ষ্যগুলোতে যখন সফল হবেন আপনার আত্নবিশ্বাস স্বয়ংক্রিয়ভাবে বৃদ্ধি পাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>

এই রকম আরও খবর