মঙ্গলবার, ১৬ জানুয়ারী ২০১৮ ইং, ,

 

আমার মা শ্রেষ্ঠ মা

বাংলা বর্ণমালার মাত্র একটি মাত্র বর্ণ দিয়ে গঠিত শব্দ-মা। পৃথিবীর সব মধুময়তা যেন এই শব্দেই গাঁথা। মা ডাক যতবার উচ্চারণ করি, তাতে কোনো ক্লান্তি কিংবা বিরক্তি সৃষ্টি হয়না। আরও সহস্র কোটিবার ডাকতে পারলেই যেন তৃপ্তি পেতাম। এই শব্দটি কতটা স্বার্থক এবং শক্তিশালী তা বাংলা কিংবা ভিন্ন কোনো ভাষার অন্য শব্দ অথবা বাক্যের সঙ্গে তুলনা করে বোঝানে সম্ভব নয়। এ যেন অমৃতের খনি।

আমার জান্নাত তুল্য জন্মদাত্রী মা। আমার মায়ের সঙ্গে পৃথিবীর অন্য কোনো মায়ের তুলনা চলে না। আমার মা শ্রেষ্ঠ মা। প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষায় আমার মায়ের ডজন ডজন সনদ নেই বটে কিন্তু মাতৃত্বের প্রশ্নে আমার মায়ের সঙ্গে জগতের অন্য কোনো শিক্ষকের, কোন চিকিৎসকের কিংবা অন্যকোনো মমতাময়ীর তুলনা চলে না।

মায়ের ত্যাগেই আমার প্রতিটি রক্তকণা, কোষ গঠিত হয়েছে। আমার শরীর, মন এবং জ্ঞানের প্রতিটি পরতে পরতে মায়ের অবদান স্পষ্ট। মায়ের কাছে শিখেছি কথা বলতে, হাঁটতে এবং অন্যকে শ্রদ্ধা করতে। আমার মধ্যে যতটুকু নৈতিকতা তার সবটকুই মায়ের দান। মা আমার জন্য যা করেছে তার ভগ্নাংশের ঋণও আমি মায়ের তরে আমার জীবন কোরবানী করে শোধ করতে পারবো না।

সেই তীব্র শীতের রাতে আমার প্রস্রাবে যখন বিছানা ভেসে গেছে তখন মা তার পিঠকে ভেজা জায়গায় রেখে আমাকে তার বুকে রেখেছেন সারা রাত, রাতের পর রাত। এমন জান্নাততুল্য মা বেঁচে থাকুক চিরকাল। ভালো থাকুক পৃথিবীর সবটুকু ভালোর সমন্বয়ে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই রকম আরও খবর